sasthoseba.com

First Health News site in Bangladesh

হযরত হুজাফাহ (রাঃ) এর ঈমানের দৃঢ়তা

tongues-of-fire-2-427x320খলীফা হযরত ওমর (রাঃ) এর খেলাফতকাল তিনি ১৯ হিজরী সনে রোমানদের বিরুদ্ধে একটি বাহিনী পাঠালেন। সেই বাহিনীতে ছিলেন সাহাবী হযরত আব্দুল্লাহ ইববে হুজাফাহ আস সাহমী (রাঃ)। রোমান সম্রাট প্রায়ই রাসূল (সঃ) এর সাহাবীদের ঈমান ও বীরত্বের কথা শুনতেন। তাই তিনি নির্দেশ দিয়েছিলেন কোন মুসলিম সৈনিক জীবিত অবস্থায় বন্দী হলে যেন তার কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। আল্লাহর ইচ্ছায় হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ)কে রোমানরা বন্দী করে এবং সম্রাটের সামনে উপস্থিত করে। রোমান সম্রাট হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ)কে বললেন, ‘আমি প্রস্তাব করছি তুমি খ্রিষ্টান ধর্ম গ্রহণ কর। তুমি যদি তা কর , তাহলে তোমাকে মুক্তি দেব এবং তোমাকে সম্মানিত করবো।’

বন্দী হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ) খুব দৃঢ়তার সাথে বললেন,’আফসোস ! যেদিকে আপনি আহবান জানাচ্ছেন তার থেকে হাজার বার মৃত্যু আমার অধিক প্রিয়।’
তখন রোমান সম্রাট বললেন, ‘আমি মনে করি তুমি একজন বুদ্ধিমান লোক,আমার প্রস্তাব মেনে নিলে আমি তোমাকে আমার ক্ষমতার অংশীদার বানাবো, আমার কন্যা তোমার হাতে সমর্পণ করবো এবং আমার এ সাম্রাজ্য তোমাকে ভাগ করে দেব।’
বেড়ী পরিহিত বন্দী হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ) মৃদু হেসে বললেন, ‘আল্লাহর কসম! আপনার গোটা সাম্রাজ্য এবং সেই সাথে আরবদের অধিকারে যা কিছু আছে সবই যদি আমাকে দেওয়া হয়, আর বিনিময়ে আমাকে বলা হয় এক পলকের জন্য মুহাম্মদের (সঃ) দ্বীন আমি পরিত্যাগ করি, আমি তা করবো না।’

রোমান সম্রাট বললেন, ‘তাহলে আমি তোমাকে হত্যা করবো।’
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ) সেই দৃঢ় স্বরে বললেন, ‘আপনার যা খুশী করতে পারেন।’
এরপর সম্রাট হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ)কে শূলকাষ্ঠে হাত পা বেঁধে ঝুলিয়ে খ্রিষ্টধর্ম গ্রহণ করতে নির্যাতন শুরু করলো। কিন্তু হুজাফাহ (রাঃ) কঠিন নির্যাতনেও তাঁর ইমান থেকে টললেন না বিন্দু পরিমাণ। এরপর বিশাল এক কড়াই এনে তাতে তেল ফুটানো হল। টগবগে সেই উত্তপ্ত তেলে ফেলা হল একজন মুসলিম বন্দীকে। ফেলার সাথে সাথে দেহের গোশত ছিন্ন ভিন্ন হয়ে হাড় পৃথক হয়ে গেল। সেটা দেখিয়ে এবার হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ)কে আবারও খ্রিষ্টান ধর্ম গ্রহণের আহবান জানানো হল। এবারও তিনি দৃঢ়ভাবে তা প্রত্যাখ্যান করলেন।
এবার সম্রাটের নির্দেশে তাঁকে উত্তপ্ত কড়াইয়ের নিকট আনা হয়। এতে হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ) এর চোখে পানি চলে আসে। এতে তার মন পরিবর্তন হয়েছে মনে করে সম্রাট তাকে আবারও খ্রিষ্টধর্ম গ্রহণ করতে বললেন কিন্তু তিনি তা আবারও প্রত্যাখ্যান করলেন।
সম্রাট তাঁকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘তাহলে আপনি কাঁদছেন কেন?’
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হুজাফাহ (রাঃ) উত্তরে বললেন, ‘আমি একথা চিন্তা করে কাঁদছি যে, এখনই আমাকে এই কড়াইয়ের মধ্যে নিক্ষেপ করা হবে এবং আমি শেষ হয়ে যাব অথচ আমার বাসনা, আমার দেহের পশমের সমসংখ্যক জীবন যদি আমার হতো এবং সবগুলিই আল্লাহর রাস্তায় এই কড়াইয়ের মধ্যে বিলিয়ে দিতে পারতাম।’

হুজাফাহ (রাঃ) উত্তর শুনে সম্রাট স্তব্ধ হয়ে গেলেন। সত্যিই আল্লাহর রাসূল (সঃ) এর সাহাবীদের ঈমান ছিল পর্বতের মতো অটল। মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকেও রাসূল (সঃ) এর সাহাবীদের মতো সুদৃঢ় ঈমান দান করুন। আমীন ।

Updated: October 27, 2015 — 10:01 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sasthoseba.com © 2014 Sasthoseba